শেরপুর- ২ আসনে প্রতিদ্বন্দিরা নেই মাঠে বিজয়ের পথে মতিয়া চৌধুরী

0
13

নিজস্ব প্রতিবেদক মোঃ সাইদুর রহমান আপন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটের প্রচারণা জমে উঠলেও প্রায় নিরুত্তাপ শেরপুর-২ আসন (নকলা-নালিতাবাড়ী) আসনটি। ৩ জানুয়ারী বুধবার সরজমিনে গিয়ে জানা গেছে এই আসনে আওয়ামী লীগ থেকে সংসদ উপনেতা বেগম মতিয়া চৌধুরীর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নতুন ২ প্রার্থী কিন্তু এলাকায় এখন পর্যন্ত তাঁদের তেমন কোনো প্রচার দেখা যায়নি। ফলে ভোটের মাঠে অনেকটা একা নৌকা প্রতীকের প্রার্থী প্রচারনা চালাচ্ছেন।জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, শেরপুর-২ সংসদীয় আসন নকলা ও নালিতাবাড়ী উপজেলার ২১টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত। এ আসনে মোট ভোটার ৪ লাখ ১২ হাজার ৩১০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ২ হাজার ৩৯ জন ও নারী ভোটার ২ লাখ ১০ হাজার ২৭১ জন।এ আসনটিতে আওয়ামী লীগসহ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মাত্র ৩ জন। তাঁরা হলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সংসদ উপনেতা বেগম মতিয়া চৌধুরী (নৌকা), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) মনোনীত প্রার্থী লাল মোহাম্মদ শাহজাহান কিবরিয়া (মশাল) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ মোহাম্মদ সাঈদ আঙ্গুর (ঈগল)।আওয়ামী লীগের প্রার্থী বেগম মতিয়া চৌধুরী সাবেক কৃষিমন্ত্রী ও বর্তমানে সংসদ উপনেতা হিসেবে এলাকার উন্নয়নে অবদান রাখায় তিনি এ আসনে ব‍্যাপক জনপ্রিয়। তাই তিনি বিজয়ের পথে।জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) প্রার্থী পেশায় একজন সাংবাদিক। আওয়ামী লীগের ডামি প্রার্থী হয়েছেন এমন গুঞ্জনে নির্বাচনী প্রচারণা বন্ধ রেখেছেন তিনি। এ অবস্থায় নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে পারেন বলে জানা গেছে।এ ছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ মোহাম্মদ সাঈদ আঙ্গুর একজন ব্যবসায়ী ও নির্দলীয় ব‍্যক্তি হিসেবে তিনিও নির্বাচনের মাঠে নেই বল্লেই চলে।নিরুত্তাপ ভোটের মাঠে বেগম মতিয়া চৌধুরী রয়েছেন নির্ভর, তাঁর বিজয়ের সম্ভাবনাই বেশি। তবে ভোটকেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতিই এ আসনে আওয়ামী লীগের জন্য বিরাট চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।এ ব‍্যাপারে স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ মোহাম্মদ সাঈদ আঙ্গুর সাংবাদিকদের বলেন, এখন পর্যন্ত নির্বাচনের পরিবেশ ভালো আছে। গণসংযোগ চালাচ্ছি, জাসদের প্রার্থী হচ্ছেন আওয়ামী লীগের ডামি প্রার্থী। আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে কর্মী ও ভোটারদের ভালো সাড়া পাচ্ছি।নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা জানিয়ে জাসদের প্রার্থী লাল মোহাম্মদ শাহজাহান কিবরিয়া সাংবাদিকদের বলেন, আমি জাসদ মনোনীত প্রার্থী। তবে প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ একটি মহল আমাকে আওয়ামী লীগের ডামি প্রার্থী হিসেবে প্রচার করছে। আমি এই কলঙ্ক মাথায় নিয়ে নির্বাচনে নাও থাকতে পারি।নালিতাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তফা কামাল সাংবাদিকদের বলেন, আমরা প্রচারণা ও গণসংযোগে ভোটারদের বেশ সাড়া পাচ্ছি। কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি বাড়ানো কিছুটা চ্যালেঞ্জিং। তবে, মতিয়া আপার জনসেবা ও উন্নয়নের জন্যই ভোটাররা কেন্দ্রে এসে ভোট দেবেন।

IFRAME SYNC

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here